jagannathpurpotrika-latest news

আজ, ,

সর্বশেষ সংবাদ
«» একজন আদর্শ শিক্ষক অধ্যক্ষ মাওঃ শামছুজ্জামান চৌধুরী «» ঈদ-উল- আযহা উপলক্ষে দেশবাসী ও মুসলিম উম্মাহকে খেলাফত মজলিসের শুভেচ্ছা «» জগন্নাথপুর উপজেলা কালচারাল ফোরাম এর নব-গঠিত কমিটিকে অভিনন্দন জানিয়ে আলোচনা সভা ও নগদ অর্থ বিতরণ «» সেপ্টেম্বরে স্কুল খুললে ডিসেম্বরেই প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষা «» বিমানের নতুন সিদ্ধানে লন্ডন প্রবাসী সিলেটীরা ক্ষুব্ধ «» গোয়াইনঘাটে অর্ধশত ইয়াবাসহ যুবক আটক «» জগন্নাথপুরে পানিবন্দি মানুষের বাড়ি বাড়ি গিয়ে উপজেলা পরিষদে চেয়ারম্যান প্রার্থী সৈয়দ তালহা আলমের নগদ অর্থ দেড় লক্ষ টাকা বিতরণ «» সাবেক শিক্ষামন্ত্রীর তাগিদে শুরু হলো সিলেট-বিয়ানীবাজার রাস্তার সংস্কার কাজ «» বাহুবলে ভাগ্নির টাকা আত্মসাৎ ও বোনকে মারধোরের ঘটনায় অভিযোগ দায়ের «» দক্ষিণ সুনামগঞ্জে সংবাদ প্রকাশের পর পরই এএসআই হাসনাত ক্লোজড



জগন্নাথপুরে সরকারী খাল ভরাটে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি, পরিবেশের উপর মারাত্মক হুমকি

নিজস্ব প্রতিবেদক :: সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুুরে প্রভাবশালী লন্ডন প্রবাসী কর্তৃক সরকারী খাল ভরাট করায় এলাকায় জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়েছে। ময়লা আবর্জনা ও দূষিত পানির দূরগন্ধ চারিদিকে রোগজীবাণু ছড়িয়ে পড়েছে। এতে করে বিপাকে পরেছেন এলাকার ভূক্তভোগী জনসাধারণ। পানি নিষ্কাশনের এক মাত্র খাল ভরাট হওয়ায় এলাকাবাসীর মধ্যে চাপা ক্ষোভ ও হতাশা বিরাজ করছে।

 

 

জানাযায়, উপজেলার সৈয়দপুর শাহারপাড়া ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের ফতেহপুর গ্রামের মৃত সিতাব আলীর পুত্র লন্ডন প্রবাসী আতাউর রহমান সরকারী এ খালটি মাটি দিয়ে ভরাট করায় নৌচলাচল বন্ধ সহ জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়। ১২৭নং জেএল স্থল ফতেহপুর মৌজার ১নং খতিয়ানের অন্তর্ভূত ৩৬নং দাগের খালরকম ভূমি, বর্তমান রেকর্ডের মন্তব্য কলামে, স্থানীয় জনসাধারনের পানি নিস্কাসনের জন্য। নৌচলাচলের প্রয়োজন থাকা সত্ত্বেও অর্থ ও প্রভাব প্রতিপত্তির কারনে অাইনের প্রতি তোয়াক্ষা না করে সম্পূর্ণ বে-অাইনি ভাবে খালটি ভরাট করেছেন বলে স্থানীয়রা জানান।

 

 

সরেজমিনকালে গ্রামের অনেকে ভয়ে মুখ খুলতে নারাজ, নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক অনেকে বলেন, আতাউর রহমান এলাকার প্রভাবশালী লোক। যার ধন ও জনবল সবই অাছে। আতাউর রহমান লন্ডন থেকে দেশে এসে উপস্থিত থেকে সরকারী খাল ভরাট করেছেন। এসময় তার বিরুদ্ধে গ্রামের কেউ প্রতিবাদ করার সাহস পায়নি।

 

 

সম্প্রতি গ্রামের লন্ডন প্রবাসী সুনারা বেগম বাদী হয়ে জগন্নাথপুর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করলে জগন্নাথপুর থানার এসঅাই রাজিব অভিযোগটি তদন্ত করেন। পরে বাদী সুনারা বেগম সুষ্ঠু সমাধানের জন্য অবৈধ দখলবাজের হাত থেকে খালটি উদ্ধার করতে গত ১৮ মার্চ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার বরাবরে আরো একটি অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগে প্রকাশ এলাকাবাসীর পানি নিস্কাশনের একমাত্র খাল মাটি দিয়ে ভরাট করায় এলাবাসীর মধ্যে চরম ক্ষোভ ও হতাশা বিরাজ করছে। এবং জনগণের বাড়ি-ঘরে পানি উঠে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হবে। যে কারনে সরকারী এ খালটি প্রবাসী ভূমি খেকুদের কবল থেকে উদ্ধার করে গ্রামের জনসাধারণের পানি ব্যবস্থা করে দিতে এলাকা বাসীর পক্ষে প্রবাসী সুনারা বেগম বাদী হয়ে অভিযোগ দু’টি দায়ের করেন।

 

 

অভিযোগের ভিত্তিতে জগন্নাথপুর উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ ইয়াসির আরফাত এর নেতৃত্বে বৃহস্পতিবার (৪ জুন) ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান চালিয়ে সরকারি জায়গা দখলের দায়ে ২ জনের কাছ থেকে জরিমানা আদায় করা হয়েছে।

 

 

এ ব্যাপারে এলাকার সালিশ ব্যক্তিত্ব আব্দুল মনাফ, আব্দুল গফুর, চন্দন মিয়া, যুক্তরাজ্য প্রবাসী হাজী আখতার হোসেন জানান, মহামারি করোনা চলাবস্তায় জলাবদ্ধতা ও পানি বাহিত রোগ আমাদের জন্য মারাত্মক হুমকি। আমাদের এ জলাবদ্ধতা নিরসনে প্রশাসনের প্রতি জোর দাবি জানান।

 

 

খাল ভরাট সম্পর্কে সৈয়দপুর শাহারপাড়া ইউপি সদস্য আব্দুল আজিদ জানান, প্রবাসী আতাউর রহমান কর্তৃক সরকারী খাল ভরাটের সত্যতা স্বীকার করে বলেন, প্রসাশনের চাপে খাল থেকে কিছু মাটি তুলা হয়েছে, সম্পুর্ন মাটি তুলা হয়নি।

 

 

বিগত ইউপি নির্বাচনে ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী এলাকার সালিশ ব্যক্তিত্ব আব্দুল মনাফ বলেন, জনস্বার্থে ড্রেনেজ ব্যবস্থার অংশ হিসাবে ঐ স্থানে ড্রেনের মাধ্যমে পানি নিস্কাসনের প্রয়োজন বলে আমি মনে করি।

 

 

সরকারী খাল দখলকারি লন্ডন প্রবাসী আতাউর রহমানের সাথে বার বার চেষ্টা করেও যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

 

 

জগন্নাথপুর উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ ইয়াসির আরফাত বলেন, সরকারি খালটি উচ্ছেদ এর কাজটি জেলাতে প্রক্রিয়াধীন, জেলা থেকে চিঠি পেলেই উচ্ছেদের মাধ্যমে উদ্ধার করা হবে।