jagannathpurpotrika-latest news

আজ, ,

সর্বশেষ সংবাদ
«» ছাতকে প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে পুলিশ সদস্য আহত «» ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বড় হুজুরের জানাযার নামাজে মুসল্লিদের ঢল «» বিশ্বনাথে অবশেষে ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে জালিয়াতির মামলা রেকর্ড «» গলায় ফাঁস দিয়ে শাবি শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা «» সিনহা হত্যা: ওসি প্রদীপ পুলিশ হেফাজতে «» ছাতকে খেলাফত মজলিসের ঈদ পুনর্মিলনী ও নির্বাহী বৈঠক অনুষ্ঠিত «» ছাতকে নামাযরত অবস্থায় মুসল্লি তৈয়ব আলীর মৃত্যু «» ছাতকে একতার অভিষেক ও ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠান সম্পন্ন «» জগন্নাথপুরে চিলাউড়া ছাত্র ফোরামের ঈদ পুনর্মিলনী ও প্রীতি সমাবেশ সম্পন্ন «» সিলেটে এম. সাইফুর রহমান ও আ.ফ.ম কামাল হোসেনের নামে চত্বর স্থাপনের দাবি



নবীগঞ্জে স্বাধীনতার পরেও উন্নয়নের ছোঁয়া পায়নি যে গ্রামবাসী!

মাহবুব আবেদীন মোহন :: হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলার ৯নং বাউসা ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডে অবস্থিত দেবপাড়া (বাঁশডর) গ্রাম। এই গ্রামে সাড়ে ৯ হাজার মানুষের বসবাস। অথচ, নবীগঞ্জ শহর থেকে প্রায় ১০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত এ গ্রামে যোগাযোগের জন্য নেই কোনো পাকা রাস্তা। বর্ষায় কাদামাটি মাড়িয়ে যেতে হয় শহরে। ধারে কাছে নেই কোন হাসপাতাল। ইমারজেন্সি রোগী নিয়ে শহরাঞ্চলের যেতে চাইলে অনেক ভোগান্তি পোহাতে হয় গ্রামবাসীর।

 

অনেক সময় ডেলিভারির রোগী নিয়ে হাসপাতালের উদ্দেশ্যে রওনা দিলে হয় রাস্তায় মধ্যেই সন্তান প্রসব, নয়ত মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন প্রসূতি মা। শিক্ষার জন্য নেই ভালো মানের কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। এত জনবহুল গ্রামে একটি মাত্র প্রাইমারী স্কুল। যার ছাত্র সংখ্যা প্রায় ৭০০ জন। স্কুলে নেই কোন ভাল মানের শিক্ষক। বিভিন্ন স্কুল থেকে টিসি প্রাপ্ত শিক্ষকদের এনে জড়ো করা হয় স্কুলে। এর ফল যেমন হওয়ার তেমনই হয়। প্রতি বছর প্রাথমিক সমাপনী পরিক্ষায় ১০০/১২০ জনের মধ্যে পাশ করেন ৫০/৬০ জন আর বাকীরা ঝরে পড়েন প্রাথমিক বিদ্যালয়েই। যারা পাশ করেন তাদের রিজাল্ট ২.০০/২.৫০। শিক্ষা-দীক্ষায় পিছিয়ে পড়া গ্রামটিতে তাই সামাজিক কলহ লেগেই থাকে।

 

 

গ্রামের মুরব্বিরা জেএসবি টুয়েন্টিফোরকে জানান, স্বাধীনতার পর থেকে নির্বাচনের প্রার্থীরা উন্নয়নের বুলি আওড়ালেও সুষ্ঠু কোনো পদক্ষেপ নেননি কেউই। তাঁরা আরো বলেন, উন্নয়নের ধারাবাহিকতায় পার্শ্ববর্তী গ্রামগুলোতে অনেক আগে বিদ্যুৎ পৌঁছুলেও এই গ্রামে বিদ্যুৎ আসে মাত্র ৩/৪ বছর পূর্বে। তাই উন্নয়নহীন গ্রামের রাস্তা ও শিক্ষাক্ষেত্রে নজর দেয়ার জন্য জনপ্রতিনিধি ও মাননীয় সরকারের প্রতি আবেদন জানান গ্রামবাসী। যাতে, উন্নতি ও অগ্রগতির এই সময়ে দেবপাড়া (বাঁশডর) গ্রামটিও হয়ে উঠে উন্নত ও আদর্শ একটি গ্রাম।