jagannathpurpotrika-latest news

আজ, ,

সর্বশেষ সংবাদ
«» খেলাফত মজলিস সিলেট মহানগরীর থানা দায়িত্বশীল সভায় মানব জীবনের দুর্যোগপূর্ণ সময়ে নেতা-কর্মীদের দায়িত্ব সচেতন হতে হবে- মাওঃ শফিক উদ্দিন «» সিলেট জেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি এম এ হকের ইন্তেকালে মহানগর খেলাফত মজলিসের শোক «» করোনা কোভিড-১৯ টেস্টের জন্য সরকারী ফি নির্ধারণ একটি গণ বিরোধী সিদ্ধান্ত: খেলাফত মজলিস «» আল্লামা আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরীর বিরুদ্ধে অপপ্রচার বন্ধ করুন «» ফেঞ্চুগঞ্জে কিশোরী ধর্ষন, গ্রেপ্তার ২ «» বিশ্বনাথের নোয়ারাই গ্রামে পথিমধ্যে হামলার মামলায় গ্রেফতার ২ «» হাসপাতালে ভয়াবহ বিস্ফোরণ : ১৯ জন নিহত «» দোয়ারাবাজারে করোনায় প্রথম মৃত্যু «» ছাত্র মজলিসের প্রথম শহীদ, তাসলিমা নাসরীন বিরোধী আন্দোলনে শাহাদাত বরণকারী শহিদ আরমান স্মরণে আলোচনা সভা «» বিশ্বনাথে প্রতিবন্ধীদের মাঝে মৌসুমী ফল বিতরণ করলেন এসপি ফরিদ উদ্দিন



মৌলভীবাজারে হোম কোয়ারেন্টাইনে ১৫১ জন

নিজস্ব প্রতিবেদক :: করোনাভাইরাস প্রতিরোধে মৌলভীবাজারে ১৫১ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। তাদের বেশিরভাগই বিদেশফেরত। এর মধ্যে তাদের কয়েকজন নিকটাত্মীয়ও রয়েছেন, যারা বিদেশফেরতদের সংস্পর্শে ছিলেন।

মৌলভীবাজার সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, মৌলভীবাজার সদর উপজেলায় ১০ জন, কুলাউড়ায় ২৪ জন, জুড়ীতে ১৩ জন, বড়লেখায় ১৭ জন, শ্রীমঙ্গলে ৪১ জন, কমলগঞ্জ ৩৭ জন এবং রাজনগর ৯ জন, সর্বমোট ১৫১ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।

যাদের কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে তারা ইতালি, আমেরিকা এবং মধ্যপ্রাচ্যফেরত এবং তাদের নিকটাত্মীয়।

তাদের শরীরে করোনাভাইরাস জনিত কোনও সমস্যা আছে কি না তা দেখার জন্য হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে বলা হয়েছে। সমস্যা দেখা দিলে পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য ঢাকা থেকে বিশেষজ্ঞ দল তাদের নমুনা সংগ্রহ করে নিয়ে যাবেন।

মৌলভীবাজারের সিভিল সার্জন ডা. তৌহীদ আহমদ বলেন, আমরা মানুষকে সচেতন করতে কাজ করছি। আমরা সংবাদের মাধ্যমে সাধারণ মানুষকে বলতে চাই, কাজ ছাড়া বাইরে বের হবেন না, ভিড় এড়িয়ে চলুন। করোনা প্রতিরোধে সরকারি নির্দেশনা মেনে চলুন। বাচ্চাদের, বৃদ্ধদের এবং গর্ভবতী মায়েদের বাসার বাইরে যেতে দিবেন না। সঠিক উপায়ে হাত ধোয়া এবং হাঁচি-কাশির নিয়ম মেনে চলুন। ১৪ দিন হোম কোয়ারেন্টাইন শেষ না হওয়ার আগ পর্যন্ত বিদেশ থেকে আগত লোকদের থেকে নিজে এবং পরিবারকে দূরে রাখুন।

তিনি আরও বলেন, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসার পূর্বপ্রস্তুতি হিসেবে মৌলভীবাজার জেলায় ১১৬টি বেড প্রস্তুত রাখা হয়েছে।