jagannathpurpotrika-latest news

আজ, ,

সর্বশেষ সংবাদ
«» দক্ষিণ সুনামগঞ্জে অধ্যক্ষ রবিউল ইসলাম আর নেই «» সুনামগঞ্জে ধানের বিকল্প হিসেবে চাষ হচ্ছে ভুট্টা, সরিষা ও সূর্যমুখী «» ঘুষের টাকা জোগাড় করতে গোপনে ২ বিয়ে, স্ত্রীদের টানা-হেঁচড়ায়… «» মৌলভীবাজারে আ.লীগের সভা বর্জন : যা বললেন শফিক «» জগন্নাথপুরে হিফযুল কুরআন প্রতিযোগিতায় সিলেট বিভাগের ২০০জন অংশ নিয়ে ২০জন বিজয়ী «» ভালো স্কুল-কলেজের সন্ধানে সুনামগঞ্জ ছাড়ছে অনেক পরিবার «» গোলাপগঞ্জে সাংবাদিকদের সাথে বিদায়ী অধ্যক্ষের মতবিনিময় «» শেখ হাসিনা কখনো ত্যাগীদের অবমূল্যায়ন করেন না: সিলেটে শফিক «» বিশ্বনাথে কৃষি উদ্যোক্তা তৈরী শীর্ষক বৈঠক অনুষ্ঠিত «» জগন্নাথপুরে অধ্যক্ষ ছমির উদ্দিন ও ড. সৈয়দ রেজওয়ান আহমদকে গুণীজন সংবর্ধনা প্রদান



জগন্নাথপুরে মেয়র আব্দুল মনাফের জানাজায় কয়েক হাজার জনতার ঢল

নিজস্ব প্রতিবেদক :: সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর পৌরসভার জননন্দিত মেয়র আওয়ামীলীগ নেতা হাজি আব্দুল মনাফের জানাজার নামাজ শুক্রবার জগন্নাথপুর সরকারি ডিগ্রি কলেজ মাঠে কয়েক হাজার মানুষের উপস্থিতিতে অনুষ্ঠিত হয়।

 

 

জানাজার পূর্বে সর্বশ্রেণীর মানুষের এ জনপ্রিয় নেতাকে শেষবারেরমতো এক নজর দেখতে কয়েক হাজার মানুষের ঢল নামে জানাজার মাঠে: শ্রদ্ধা, ভালবাসা ও চোঁখের অশ্রুতে শেষ বিদায়ে সম্পন্ন হয় মেয়র হাজি আব্দুল মনাফের জানাজা। জানাজার নামাজে ইমামতি করেন মরহুমের ছোট ছেলে হাফিজ আকমল হোসেন সুহেব। জানাজা শেষে দোয়া পরিচালনা করেন বিশিষ্ট অালেমেদ্বীন হযরত মাওলানা শায়খুল হাদিস আল্লামা শায়খ হাবিবুর রহমান।

 

 

বিশিষ্ট অালেমেদ্বীন অধ্যক্ষ মাওলানা মঈনুল ইসলাম পারভেজ ও এডভোকেট জিয়াউর রহীম শাহিনের যৌথ পরিচালনায় জানাজার পূর্বে মরহুমের উপর স্মৃতিচারণ করে বক্তব্য রাখেন, সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি জননেতা সিদ্দিক আহমদ, সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি এড. শফিকুল আলম, সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগ নেতা ও জগন্নাথপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি নুরুল ইসলাম, জগন্নাথপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আকমল হোসেন, সুনামগঞ্জ জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি এড. মল্লিক মইন উদ্দিন সুহেল, জগন্নাথপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আতাউর রহমান, জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাহফুজুল আলম মাসুম, সুনামগঞ্জ পৌরসভার মেয়র নাদের বখত, জামালগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান ইউসুফ আল আজাদ, জগন্নাথপুর পৌরসভার সাবেক মেয়র বিএনপি নেতা আক্তার হোসেন, সুনামগঞ্জ জেলা পরিষদ সদস্য জগন্নাথপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি সৈয়দ সাব্বির আহমদ ছাবির মিয়া, জগন্নাথপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রিজু, জগন্নাথপুর উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান অাওয়ামীলীগ নেতা মুক্তাদির আহমদ মুক্তা, জগন্নাথপুর পৌরসভার ভারপ্রাপ্ত মেয়র শফিকুল হক, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম, অাওয়ামীলীগ নেতা সাবেক চেয়ারম্যান হারুন রশীদ, সাবেক চেয়ারম্যান আবদুল হান্নান চৌধুরী সুফি মিয়া, কলকলিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আবদুল হাসিম, পাটলি ইউপি চেয়ারম্যান সিরাজুল হক, মেয়র পুত্র সেলিম আহমদ, প্রবাসী আবদুস শহিদ, পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি ডাঃ আবদুল আহাদ, সাধারণ সম্পাদক হাজী ইকবাল হোসেন ভূইয়া, সাংবাদিক সানোয়ার হাসান সুনু, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি কামাল উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক আবুল হোসেন লালন, পৌর কাউন্সিলর দিলোয়ার হোসেন, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সাফরোজ ইসলাম মুন্না প্রমূখ।

 

 

 

জানাযায় বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, জনপ্রতিনিধি নেতৃবৃন্দের মধ্যে অংশ নেন, জগন্নাথপুর থানার অফিনার ইনচার্জ (ওসি) ইফতিখার উদ্দিন চৌধুরী, বিশিষ্ট অালেমেদ্বীন হযরত মাওলানা শায়খ হাজি ইমদাদুল্লাহ শায়খে কার্তিয়া, সুনামগঞ্জ জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি এম এ মালেক খান, জগন্নাথপুর বাজার বণিক সমিতির সভাপতি আফছর উদ্দিন ভূইয়া, জগন্নাথপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে সম্ভাব্য ভাইস চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী সৈয়দ তুহেল অাহমদ, জগন্নাথপুর সরকারি ডিগ্রি কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ অাব্দুননুর, বর্তমান ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ জাহিদুল ইসলাম, জগন্নাথপুর উপজেলা বিএনপির সাবেক ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মির্জা অাবুল কাশেম স্বপন, জগন্নাথপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বদরুল ইসলাম, প্রচার সম্পাদক হাজী আবদুল জব্বার, অাওয়ামীলীগ নেতা কাউন্সিলর আবাব মিয়া, উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-প্রচার সম্পাদক ফিরোজ আলী, সাংস্কৃতিক সম্পাদক মুজিবুর রহমান, জগন্নাথপুর বাজার সেক্রেটারি জাহির উদ্দিন, জগন্নাথপুর বাজার বণিক সমিতির সহ-সভাপতি অামিনুল ইসলাম, জগন্নাথপুর পৌরসভার প্যানেল মেয়র-সুহেল আহমদ, কাউন্সিলর খলিলুর রহমান, কাউন্সিলর তাজিবুর রহমান, কাউন্সিলর গিয়াস উদ্দিন মুন্না, জগন্নাথপুর পাঠাগার মসজিদের ইমাম মাওলানা শায়খ অাব্দুল হাফিজ, জগন্নাথপুর উপজেলা প্রেসক্লাব সাধারণ সম্পাদক মো.শাহজাহান মিয়া, জগন্নাথপুর পত্রিকার সম্পাদক সাংবাদিক ইয়াকুব মিয়া, বাংলাদেশ খেলাফত মজলিস জগন্নাথপুর উপজেলার সাধারণ সম্পাদক মাওলানা সাইফুর রহমান সাজাওয়ার, জগন্নাথপুর উপজেলা জাপা নেতা ডাঃ অাছকির খান, জগন্নাথপুর কোট মসজিদের ইমাম মাওলানা নিজাম উদ্দিন জালালী, জগন্নাথপুর উপজেলা অাল ইসলাহর সভাপতি মাওলানা অাজমল হোসেন জামি, অাল ইসলাহর নেতা মাওলানা নুর অাহমদ, সৈয়দপুর শাহারপাড়া ইউনিয়ন অাওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মনোয়ার অালী, জগন্নাথপুর মাহিমা রেষ্টুরেন্টের পরিচালক ব্যবসায়ী মকবুল হোসেন ভূইয়া, জগন্নাথপুর পৌর সচিব মোবারক হোসেন, জাপা নেতা অাব্দুল মনাফ, জগন্নাথপুর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি হাবিবুর রহমান, পৌর স্বেচ্ছাসেবক লীগের ছালিক আহমদ পীর, উপজেলা বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগের সভাপতি ফারুক আলী তালুকদার, জগন্নাথপুর উপজেলার, বিএনপি নেতা সাহেদ অাহমদ, যুবদল নেতা এম এম সুহেল, মানবাধিকার কর্মী ফয়জুল হক অামিনী, জগন্নাথপুর উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি শামছুল ইসলাম রাজন, সাবেক সহ-সভাপতি ইমরুল হক হিরক, জগন্নাথপুর ছাত্রলীগ নেতা শাহ শাহেদুর রহমান শাহেদ, জগন্নাথপুর উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদ শাহ রুহেল, উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা অাব্দুল মুকিত, জগন্নাথপুর সরকারি ডিগ্রি কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক তাহা অাহমদ, জগন্নাথপুর উপজেলা ছাত্রদলের সিনিয়র নেতা জাহেদ অাহমদ, ছাত্রদল নেতা শামসুজ্জান শামীম, সিদ্দিকুর রহমান, শেখ মামুন, মুহিত অাহমদ, জয়নুল হক জয়, আওয়ামীলীগ, বিএনপি, জাতীয় পার্টি, খেলাফত মজলিস, জমিয়ত, জামায়ত সহ বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার কয়েক হাজার মানুষের উপস্থিতিতে তাদের প্রিয়নেতাকে শ্রদ্ধা, ভালবাসা ও চোখের অশ্রুতে শেষ বিদায় জানান জানাযায়।

 

 

উল্লেখ্য, জগন্নাথপুর পৌরসভার মেয়র হাজি আব্দুল মনাফ রোববার লন্ডনে ইন্তেকাল করেন ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্নাইলাইহি রাজিউন। মৃত্যুকালে ৩ ছেলে ৬ মেয়ে ও অসংখ্য ভক্ত গুণগ্রাহী রেখে যান। তাহার প্রথম জানাজা লন্ডনে অনুষ্ঠিত হয়। ১৬ জানুয়ারি বৃহস্পতিবার সিলেট নগরীর শামীমাবাদে দ্বিতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। ১৭ জানুয়ারি শুক্রবার মেয়র হাজি আব্দুল মনাফের মৃতদেহ সকাল ১০ টার দিকে জগন্নাথপুর পৌর ভবন প্রাঙ্গনে রাখা হলে জনপ্রতিনিধি ও বিভিন্ন রাজনৈতিক এবং সামাজিক সংগঠনের পক্ষথেকে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানো হয়। বিকেল ৩ টার দিকে জগন্নাথপুর সরকারী ডিগ্রি কলেজ মাঠে তৃতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। তৃতীয় নামাজে জানাযা শেষে হবিবপুর নিজ বাড়িতে তাহার তৈরি কবরস্থানে দাফন করা হয়। দাফন শেষে তাঁর বাড়িতে বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার নেতৃবৃন্দ মরহুমের আত্মীয়-স্বজন ও পরিবারের সদস্যদের সান্তনা দেন ও সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।