jagannathpurpotrika-latest news

আজ, ,

সর্বশেষ সংবাদ
«» একজন আদর্শ শিক্ষক অধ্যক্ষ মাওঃ শামছুজ্জামান চৌধুরী «» ঈদ-উল- আযহা উপলক্ষে দেশবাসী ও মুসলিম উম্মাহকে খেলাফত মজলিসের শুভেচ্ছা «» জগন্নাথপুর উপজেলা কালচারাল ফোরাম এর নব-গঠিত কমিটিকে অভিনন্দন জানিয়ে আলোচনা সভা ও নগদ অর্থ বিতরণ «» সেপ্টেম্বরে স্কুল খুললে ডিসেম্বরেই প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষা «» বিমানের নতুন সিদ্ধানে লন্ডন প্রবাসী সিলেটীরা ক্ষুব্ধ «» গোয়াইনঘাটে অর্ধশত ইয়াবাসহ যুবক আটক «» জগন্নাথপুরে পানিবন্দি মানুষের বাড়ি বাড়ি গিয়ে উপজেলা পরিষদে চেয়ারম্যান প্রার্থী সৈয়দ তালহা আলমের নগদ অর্থ দেড় লক্ষ টাকা বিতরণ «» সাবেক শিক্ষামন্ত্রীর তাগিদে শুরু হলো সিলেট-বিয়ানীবাজার রাস্তার সংস্কার কাজ «» বাহুবলে ভাগ্নির টাকা আত্মসাৎ ও বোনকে মারধোরের ঘটনায় অভিযোগ দায়ের «» দক্ষিণ সুনামগঞ্জে সংবাদ প্রকাশের পর পরই এএসআই হাসনাত ক্লোজড



গোলাপগঞ্জে সরকারি রাস্তা কেটে শিক্ষকের খাল খনন!

ডেস্ক রিপোর্ট :: সিলেটের গোলাপগঞ্জ উপজেলায় অনুমতি ছাড়া সরকারি গোপাট রাস্তা কেটে খাল খননের অভিযোগ উঠেছে। পরে উপজেলা প্রশাসনের হস্তক্ষেপে কাজটি বন্ধ করে দেয়া হয়। উপজেলার বাদেপাশা ইউনিয়নের নোয়াই গ্রামে শুক্রবার এ ঘটনা ঘটে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এলাকার অনেকে জানান, স্থানীয় এক মাদরাসা শিক্ষকের নির্দেশে এবং জামাত নেতাদের যোগসাজেশে সরকারি গোপাট রাস্তা কেটে খাল খনন শুরু করা হয়। নোয়াই গ্রামের মাওলানা সাইফুল ইসলামের নেতৃত্বে নোয়াই সরকারি গোপাট রাস্তাটি শ্রমিকরা কাটতে থাকেন। এসময় রাস্তা কাটার খবর পেয়ে স্থানীয়রা এসে বিষয়টি দেখে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মামনুর রহমানকে ফোনে অবহিত করলে তিনি তাৎক্ষনিক রাকুয়ারাবাজার পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মুরাদ উল্লাহ বাহারকে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে প্রয়োজীয় ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দেন। এর প্রেক্ষিতে এসআই কামরুল একদল পুলিশকে নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে রাস্তা কাটার সত্যতা পান। এসআই কামরুল অভিযুক্তদের সর্তক করে বলেন, সংশ্লিষ্ঠ কর্তৃপক্ষ ব্যতিত কেউ সরকারি গোপাট রাস্তা কাটার অধিকার নেই। যদি গোপাট রাস্তা কেউ কাটেন তাহলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

 

নাম প্রকাশ না করার শর্তে এলাকাবাসী জানান, শিক্ষক সাইফুল ইসলাম সরকারি গোপাট রাস্তা কাটার এমন সাহস পেলেন কীভাবে? গোপাট রাস্তার কাটার কারণে সকাল থেকে এলাকার মানুষ যানবাহন নিয়ে যাতায়াত করতে পারেনি। এতে এ অঞ্চলের মানুষের চলাচলে মারাত্মক ব্যাঘাত ঘটে।

 

 

এ ব্যাপারে গোলাপগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মামুনুর রহমান বলেন, আমাদের সংশ্লিষ্ট কর্র্তৃপক্ষ গোপাট রাস্তাটি কাটার কোনো অনুমতি দেয়নি। আমি বিষয়টি শুনে তাৎক্ষণিক রাকুয়ার বাজার ফাঁড়ির ইনচার্জকে বলে দিয়েছি বিষয়টি দেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে  এবং পরবর্তী নির্দেশ ছাড়া কেউ সরকারি গোপাট রাস্তা কাটতে পারবে না। আমি আগামী ১৬ জানুয়ারি ঘটনাটি স্বচক্ষে দেখে পরবর্তী ব্যবস্থা নেব।

 

এ বিষয়ে উপজেলা দায়িত্বরত পিআইও জমিরুল ইসলাম জানান, আমি বিষয়টি জেনেছি। রাস্তা কাটতে কেউ অনুমতি নেয়নি। আমি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে বিষযটি অবগত করেছি।

 

বাদেপাশা ইউপি চেয়ারম্যান মস্তাক আহমদ জানান, উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে বিষয়টি নিস্পত্তি করা হবে।