jagannathpurpotrika-latest news

আজ, ,

সর্বশেষ সংবাদ
«» বড়লেখায় ৬টি মামলার পলাতক আসামি শিবির নেতা গ্রেফতার «» কানাইঘাট উপজেলা সমাজকল্যাণ পরিষদের উদ্যােগে ৭শতাধিক শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা প্রদান «» সুনামগঞ্জের মাওলানা সাদিক সালীম দেশসেরা তরুণ আলোচিত সংগঠক মনোনীত «» সিলেটে মাদ্রাসার শিক্ষার্থীদের মাঝে বই ও শিক্ষা উপকরণ বিতরণে মাদ্রাসা শিক্ষার উন্নয়নে কাজ করছে সরকার- ডা শিপলু «» মাধবপুরে দাখিল মাদ্রাসায় সাড়ে ৩ কোটি টাকা ব্যায়ে ৪ তলা ভবনের ভিত্তি প্রস্তর করলেন বিমান ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী «» ফেঞ্চুগঞ্জের শরিফগঞ্জে ৮ম দ্বৈত ব্যাডমিন্টন প্রতিযোগিতার উদ্বোধন «» জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটিতে সিলেটের চার নেতা «» জগন্নাথপুরে মেয়র আব্দুল মনাফের জানাজায় কয়েক হাজার জনতার ঢল «» সিলেটে আরিফুল হক চৌধুরী একাডেমীতে বই বিতরণ «» সিলেটে স্ত্রীর সামনে ছাতকের এক তরুণীকে ৩ মাস ধরে ধর্ষণ: থানায় মামলা দায়ের



কমলগঞ্জে নির্যাতনের শিকার গৃহবধু, প্রশাসনের সহযোগীতা কামনা

নিজস্ব প্রতিবেদক :: মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে প্রবাসী এক স্বাামীর নির্যাতনে স্বীকার গৃহবধূ। স্ত্রী সন্তান রেখে প্রবাস থেকে আসার পর প্রেমের মাধ্যমে আরেক মেয়েকে বিয়ে করে পালিয়ে যায় স্বামী। উপজেলার পতনউষার ইউনিয়নের বৈদ্যনাথপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে। জানা যায়, বৈদ্যনাথপুর গ্রামের জমির আলীর মেয়ে রোমেনা আক্তার (২২) একই এলাকার সুন্দর আলীর ছেলে মোঃ পারভেজ মিয়ার সাথে ২০১৮ সালের মে মাসের ২৮ তারিখ বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন। কিছু দিন সংসার করার পর রোমেনার গর্ভে একটি সন্তান আসে। এ সময় স্বামী পারভেজ চলে যান বিদেশে।

 

এর পর থেকে স্ত্রীর সাথে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে। স্ত্রী রোমেনা আক্তার জানান, বিদেশ যাওয়ার সময় আমার বাবার কাছ থেকে ৫০ হাজার টাকা নিয়ে দিয়েছি। দীর্ঘ দেড় বছর বিদেশ থাকা অবস্থায় কোন যোগাযোগ রাখেনি। এ দেড় বছরের মধ্যে একটি ছেলে সন্তান জন্ম হয়েছে। ছেলের নাম জিসান মিয়া (১৩মাস) ছেলে জন্মের পর থেকে স্বামীর পরিবারের লোকজনের অত্যাচার নির্যাতন সহ্য করে রয়েছি। বাবার বাড়ী থেকে সহায়তা নিয়ে ছেলেকে লালন পালন করছি। স্ত্রী আরও জানায়, স্বামী বিদেশ থেকে প্রায় দেড় বছরে দেশে আসার পর এক মেয়েকে নিয়ে রাত্রী যাপন করে পরের দিন ঐ মেয়েকে নিয়ে পালিয়ে যায়। এরপর থেকে শিশু সন্তান সহ বাবার বাড়ীতে রয়েছি।

 

এখন পর্যন্ত শিশু সন্তান ও আমার কোন খোঁজখবর রাখেনি আমার স্বামী পারভেজ। পালিয়ে যাওয়া নারী একই এলাকার সাইফুল ইসলামের মেয়ে রুনা বেগম। রোমেনার বাবা জমির আলী বলেন, যৌতুকের দাবি পূরণ করতে না পারায় আমার মেয়ের শরীরের বিভিন্ন অংশে আঘাত করে পারভেজ ও তার পরিবারের সদস্যরা।

 

এ ঘটনায় মৌলভীবাজার জুডিসয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট ৩নং আমলী আদালতে আমার মেয়ে বাদি হয়ে পারভেজকে আসামী করে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

 

 

এ ব্যাপারে অভিযোক্ত স্বামী পারভেজ মিয়া বলেন, বিবাহের পর থেকে স্ত্রীর সাথে ঝগড়া বিবাদ লেগেই আছে। এ বিবাদ নিয়ে সামাজিক বৈঠক হলে ও স্ত্রীর পক্ষ থেকে কোন সমাধান করা হয়নি। সে আরও বলেন, যন্ত্রনা সহ্য করতে না পেরে অন্য এক মেয়েকে বিয়ে করছি। প্রথম স্ত্রীকে নিয়ে আর সংসার করা যাবেনা। স্ত্রীকে ছেড়ে দেওয়ার বিষয়ে যে ভাবে সমাধান হবে আমার মতামত থাকবে।

 

 

পতনউষার ইউপি চেয়ারম্যান তওফিক আহমদ বাবু ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ছেলেটা খারাপ প্রকৃতির। এ ছেলে স্ত্রী সন্তান রেখে আরেকটি মেয়েকে নিয়ে বিবাহ করছে। তাই মেয়েটি আদালতে মামলা করছে। আইনিভাবে তার ব্যবস্থা নেওয়া হবে।