jagannathpurpotrika-latest news

আজ, ,

সর্বশেষ সংবাদ
«» দক্ষিণ সুনামগঞ্জে অধ্যক্ষ রবিউল ইসলাম আর নেই «» সুনামগঞ্জে ধানের বিকল্প হিসেবে চাষ হচ্ছে ভুট্টা, সরিষা ও সূর্যমুখী «» ঘুষের টাকা জোগাড় করতে গোপনে ২ বিয়ে, স্ত্রীদের টানা-হেঁচড়ায়… «» মৌলভীবাজারে আ.লীগের সভা বর্জন : যা বললেন শফিক «» জগন্নাথপুরে হিফযুল কুরআন প্রতিযোগিতায় সিলেট বিভাগের ২০০জন অংশ নিয়ে ২০জন বিজয়ী «» ভালো স্কুল-কলেজের সন্ধানে সুনামগঞ্জ ছাড়ছে অনেক পরিবার «» গোলাপগঞ্জে সাংবাদিকদের সাথে বিদায়ী অধ্যক্ষের মতবিনিময় «» শেখ হাসিনা কখনো ত্যাগীদের অবমূল্যায়ন করেন না: সিলেটে শফিক «» বিশ্বনাথে কৃষি উদ্যোক্তা তৈরী শীর্ষক বৈঠক অনুষ্ঠিত «» জগন্নাথপুরে অধ্যক্ষ ছমির উদ্দিন ও ড. সৈয়দ রেজওয়ান আহমদকে গুণীজন সংবর্ধনা প্রদান



অবশেষে দেশে আসল পেঁয়াজবাহী ১৮৯টি ট্রাক

জেএসবি টুয়েন্টিফোর ডেস্ক :: চারদিন ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানি বন্ধ থাকার পর অবশেষে ভারতীয় পেঁয়াজ আমদানির অন্যতম রুট সোনামসজিদ স্থলবন্দরে দিয়ে ১৮৯ ট্রাক পেঁয়াজ বাংলাদেশে এসেছে।

 

 

শুক্রবার (৪ অক্টোবর) বিশেষ ব্যবস্থায় ভারতের মহদীপুর স্থলবন্দর থেকে এই পেঁয়াজ বাংলাদেশে আসে। দু’দেশের উচ্চ পর্যায়ের সিদ্ধান্তে ও আইন অনুয়ায়ী এই পেঁয়াজের ট্রাকগুলো বাংলাদেশে প্রবেশ করতে পেরেছে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে। তবে শুক্রবার আসা অল্প কিছু পেঁয়াজ ভারতের মহদীপুর বন্দরে কয়েকদিন যাবত ট্রাকে লোড অবস্থায় বাংলাদেশে প্রবেশের জন্য অপেক্ষায় থাকায় পঁচে নষ্ট হয়ে গেছে।

 

 

গত ২৯ সেপ্টেম্বর ভারত সরকারের নিষেধাজ্ঞার কারণে বন্ধ হয়ে যায় পেঁয়াজ আমদানি। শুক্রবার যে পেঁয়াজগুলো আমদানী হয়েছে সেগুলো গত ২৮’অক্টোবর পর্যন্ত এলসি করা বলে জানা গেছে। তবে ওই সময়ের মধ্যে আরও পেঁয়াজের এলসি করা রয়েছে বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে। এগুলো পূজোর ছুটির পর থেকে বাংলাদেশে আসবে বলেও জানা গেছে। সোনামসজিদ সিএন্ডএফ এজেন্ট এসোসিয়েসন সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান পেঁয়াজ আসার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ছুটির মধ্যেও দু’দেশের দু’বন্দরের সংশ্লিষ্ট সকল পক্ষের সহযোগিতায় শুক্রবার দুপুর থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত ১৮৯ ভারতীয় ট্রাকভর্তি পেঁয়াজ বন্দরে প্রবেশ করেছে। তবে এর মধ্যে কিছু পেঁয়াজ বাংলা ট্রাকে খালাস হয়ে দেশের বিভিন্ন গন্তব্যে রওনা হয়ে গেছে। এই ১৮৯টি পেঁয়াজের ট্রাক মহদীপুরে অপেক্ষমান ছিল।

এদিকে চলতি মাসের মধ্যেই ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানীর সংকট কেটে যাবে আশা করেছেন সিএন্ডএফ নেতৃবৃন্দ। তবে এলসি মূল্য বাড়তে পারে ধারণা করছেন তারা।