jagannathpurpotrika-latest news

আজ, ,

সর্বশেষ সংবাদ
«» দক্ষিণ সুনামগঞ্জে অধ্যক্ষ রবিউল ইসলাম আর নেই «» সুনামগঞ্জে ধানের বিকল্প হিসেবে চাষ হচ্ছে ভুট্টা, সরিষা ও সূর্যমুখী «» ঘুষের টাকা জোগাড় করতে গোপনে ২ বিয়ে, স্ত্রীদের টানা-হেঁচড়ায়… «» মৌলভীবাজারে আ.লীগের সভা বর্জন : যা বললেন শফিক «» জগন্নাথপুরে হিফযুল কুরআন প্রতিযোগিতায় সিলেট বিভাগের ২০০জন অংশ নিয়ে ২০জন বিজয়ী «» ভালো স্কুল-কলেজের সন্ধানে সুনামগঞ্জ ছাড়ছে অনেক পরিবার «» গোলাপগঞ্জে সাংবাদিকদের সাথে বিদায়ী অধ্যক্ষের মতবিনিময় «» শেখ হাসিনা কখনো ত্যাগীদের অবমূল্যায়ন করেন না: সিলেটে শফিক «» বিশ্বনাথে কৃষি উদ্যোক্তা তৈরী শীর্ষক বৈঠক অনুষ্ঠিত «» জগন্নাথপুরে অধ্যক্ষ ছমির উদ্দিন ও ড. সৈয়দ রেজওয়ান আহমদকে গুণীজন সংবর্ধনা প্রদান



দেশে গরুর চেয়ে ছাগলের সংখ্যা বেশি

ডেস্ক রিপোর্ট :: বর্তমানে গবাদি সম্পদ খাতে দেশে গরু আছে প্রায় ২ কোটি ৪২ লাখ আর ছাগল আছে ২ কোটি ৫২ লাখ। দেশে ভেড়া আছে ৩৫ লাখ।

রবিবার সকালে হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে আয়োজিত প্রাণীসম্পদ খাতে বীমা ব্যবস্থাপনা উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এ তথ্য দেন প্রাণিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী আশরাফ আলী খান।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, গবাদি পশুর প্রাথমিক চিকিৎসাসহ বীমা সুবিধা চালু করা হচ্ছে। তথ্য প্রযুক্তিভিত্তিক মোবাইর অ্যাপসের মাধ্যমে নতুন সেবায় গবাদি পশুর জাত উন্নয়ন হবে। বাড়বে দুধ ও মাংসের উৎপাদন। বীমা সুবিধা থাকায় গরুর মৃত্যুতে কৃষকের আর্থিক ক্ষতি কমবে।

প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, গরুর দুধে বিষ নিয়ে আন্তজাতিক ষড়যন্ত্র হয়েছিল কিছুদিন আগে। একইভাবে ক’বছর আগে পোল্ট্রি মুরগীর সাংস ও ডিমে ক্ষতিকর উপাদান আছে বলে প্রচার ছিল এ চক্রান্তের অংশ।

অনুষ্ঠানে খামারিদের আর্থিক সুরক্ষা নিশ্চিত করতে প্রাণী বীমা চালু করেছে ফিনিক্স ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি। রেডিও ফ্রিকোয়েন্সি সনাক্তকরণের মাধ্যমে প্রাণী সম্পদের সার্বিক উন্নয়ন এই বীমা পরিকল্পের লক্ষ্য। প্রাথমিকভাবে গরু ও মহিষ এই বীমার আওতায় থাকবে। বীমাকৃত প্রাণী চুরি হলে এবং দুর্ঘটনা বা অসুস্থতায় মারা গেলে ক্ষতিপূরণ দেবে কোম্পানি।

প্রতিটি বীমাকৃত প্রাণীর সর্বোচ্চ বীমা অঙ্ক হবে আড়াই লাখ টাকা। গবাদি প্রাণীর মোট মূল্যের ওপর বীমার প্রিমিয়াম নির্ধারণ করা হবে। স্থায়ীভাবে পূর্ণাঙ্গ পঙ্গুর ক্ষেত্রে প্রিমিয়াম দিতে হবে ১ শতাংশ।