jagannathpurpotrika-latest news

আজ, ,

সর্বশেষ সংবাদ
«» ছাত্র মজলিসের সদস্য সম্মেলন সম্পন্ন : মানবতার মুক্তির জন্যে ইসলামের বিজয় অনিবার্য- মাওলানা ইসহাক «» নদীটির নাম বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্র মজলিস : রুহুল আমীন সাদী «» ছাত্র মজলিসের কেন্দ্রীয় নির্বাচনে নতুন কমিটি ঘোষণা «» দেশে হত্যা, ধর্ষণ, দুর্নীতির মহামারি চলছে- অামীরে মজলিস মাওলানা ইসহাক «» সিলেটে সদরকে হারিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে জৈন্তাপুর «» গোয়াইনঘাটের আলীরগাঁও ইউনিয়ন বিভক্তি «» দ্রুত সংস্কার কাজ শুরুর আশ্বাসে বিশ্বনাথে পরিবহন শ্রমিকদের ধর্মঘট প্রত্যাহার «» জগন্নাথপুরে নির্বাচনের বাছাই কালে ২ প্রার্থী বাতিল «» ছাত্র মজলিসের ২৯তম সদস্য সম্মেলন উৎসব মুখর পরিবেশে অনুষ্টিত হবে শুক্রবার «» কথা ছিলো : মিহির চৌধুরী ইমন



জগন্নাথপুরে প্রতিশোধ নিতে ফুফুকে ধর্ষণের চেষ্টা মামলার আসামী ভাইপো !

নিজস্ব প্রতিবেদক :: সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে প্রতিশোধ পরায়ন হয়ে অবশেষে ফুফুকে ধর্ষণের চেষ্টা মামলায় ভাইপোকে আসামী করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে জগন্নাথপুর পৌর শহরের হবিবপুর আশিঘর গ্রামে। এ নিয়ে এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

জানাগেছে, হবিবপুর আশিঘর গ্রামের মৃত উস্তার উল্লার ছেলে আফরোজ মিয়া ও তার চাচী মৃত তারিফ উল্লার স্ত্রী কদর বিবির মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বাড়ির জায়গা সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছে। এ নিয়ে একবার সংঘর্ষের ঘটনায় ৫ জন আহত হন। পরে স্থানীয় শালিসি ব্যক্তি ও জনপ্রতিনিধিরা অনেকবার চেষ্টা করেও তাদের বিরোধ নিস্পত্তি করতে পারেননি। এরপর তাদের মধ্যে শুরু হয় মামলা ও পাল্টা মামলা দায়েরের ঘটনা। জগন্নাথপুর থানা ও সুনামগঞ্জ আদালতে ইতোমধ্যে আফরোজ মিয়া পক্ষে ৩টি ও কদর বিবি পক্ষে ৪টি সহ মোট ৭টি মামলা চলছে। এর মধ্যে কদর বিবির মেয়ে মোসেদা বেগম বাদী সুনামগঞ্জ আদালতে ধর্ষণের চেষ্টা মামলা করেন। মামলা নং-১৯৩/১৯ইং। মামলায় জগন্নাথপুর উপজেলা যুবলীগের স্বাস্থ্য সম্পাদক ইব্রাহিম আলী ও আফরোজ মিয়াকে আসামী করা হয়। এর মধ্যে আসামী ইব্রাহিম আলী বাদীনির সম্পর্কে ভাইপো ও আফরোজ মিয়া চাচাতো ভাই হয়। আর আফরোজ মিয়ার ভাতিজা হচ্ছেন ইব্রাহিম আলী।
এ ব্যাপারে ৮ জুলাই সোমবার স্থানীয়দের সাথে আলাপকালে নাম প্রকাশ না করার শর্তে অনেকে ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, মামলা করতে করতে দিশেহারা ও প্রতিশোধ পরায়ন হয়ে মোসেদা বেগম অবশেষে তার নিজ ভাইপোতকে নিজের ধর্ষণের চেষ্টা মামলায় জড়িয়েছেন। যা কোন অবস্থায় সত্য নয়। এমন ঘটনায় এলাকাবাসী হতবাক হয়েছেন এবং সর্বত্র ক্ষোভ বিরাজ করছে।
এ ব্যাপারে জানতে চাইলে স্থানীয় পৌর কাউন্সিলর দিলোয়ার হোসেন বলেন, হবিবপুরের মাটিতে ফুফু-ভাইপোতে এমন ঘটনা, আমি তা ভাবতে পারছি না। এছাড়া সংঘর্ষের ঘটনায় দায়েরকৃত মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা জগন্নাথপুর থানার এসআই অনুজ কুমার দাশ বলেন, তাদের মধ্যে জায়গা নিয়ে মারামারির ঘটনায় আফরোজ পক্ষের দায়েরকৃত মামলার চার্জশিট ইতোমধ্যে আদালতে প্রদান করা হয়েছে।